বিতর্ক নিয়ে আম্পায়ার তানভীর যা বললেন

ampayar
ছবি : newsbuzz24

গতকাল ওয়েস্ট ইন্ডিজ-বাংলাদেশ শেষ টি-টোয়েন্টিতে আম্পায়ার তানভীর আহমেদ বাজে আম্পায়ারিং করে সমালোচিত। অতীতেও সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবালের সঙ্গে বাগ্‌বিতণ্ডায় জড়িয়েছিলেন তিনি। তবে দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো আম্পায়ার হিসেবেই সুনাম আছে তাঁর। গত নভেম্বরেই ২০১৮-১৯ মৌসুমের জন্য আইসিসির প্যানেলে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি।

গতকাল বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার সিরিজ-নির্ধারণী টি-টোয়েন্টি ম্যাচে আম্পায়ার তানভীর আহমেদের বাজে আম্পায়ারিং হতবাক করে দিয়েছে সবাইকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওশানে টমাসের ওভারে দুটি ভুল ‘নো বলে’র ডাক দিয়ে সমালোচিত তিনি। অনেকেই তানভীরের এই ভুলকে বলছেন ‘ন্যক্কারজনক’। ভুল মানুষের হতেই পারে, কিন্তু তানভীরের ভুল তাঁর আম্পায়ারিং সামর্থ্যকেই প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। তবে তানভীর অবশ্য নিজের ভুল অকপটেই স্বীকার করছেন।

অতীতে তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসানের সঙ্গে বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে আম্পায়ারিংয়ের বেশ সুনাম আছে তানভীরের। এর ফলে গত নভেম্বরেই ২০১৮-১৯ মৌসুমের জন্য আইসিসি আম্পায়ারদের প্যানেলে জায়গা পেয়েছেন। সিলেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আম্পায়ারিং শুরু করেছেন। আর গতকালই ছিল তাঁর তৃতীয় ম্যাচ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের অনভিজ্ঞতাকেই গতকালের ভুলের পেছনে দায়ী করেছেন তানভীর। 
গতকালকের ‘নো বল’ নিয়ে নিজের ভুলই স্বীকার করেছেন তানভীর, ‘“নো বলে”র ক্ষেত্রে দাগ ও পা অনেক কাছাকাছির বিষয় থাকে। আর দ্রুত লাফ দিলে অনেক সময় বুঝতে একটু সমস্যা হয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আমি নতুন। আমি ভুল করেছি। তবে খেয়াল করে দেখবেন পেছনে আমার কোনো বাজে ইতিহাস নেই। একটা ভুল হয়েছে। ইনশা আল্লাহ ভালোভাবে ফিরে আসব। প্রতিটি মানুষেরই ভালো দিন, খারাপ দিন যায়। গতকাল আমার খারাপ দিন গেছে।’

গতকালের ভুলের পর থেকেই মুণ্ডুপাত করা হচ্ছে তানভীরের। সবকিছুকে সহজভাবেই নিচ্ছেন তিনি, ‘গতকাল কেবল ম্যাচ শেষ হয়েছে, আমি কোনো দিকেই মনোযোগ দিচ্ছি না। নিজের ভুলটা নিয়েই ভাবছি।’

বাংলাদেশের ইনিংসের চতুর্থ ওভারের ঘটনা ছিল সেটি। ওশানে টমাসের ওভারে দুটি ‘নো বলে’র কল নিয়েই সমালোচনা হচ্ছে। এর মধ্যে একটিতে লিটন দাস বেঁচে যান ক্যাচ দিয়েও। পরে টিভি রিপ্লেতে দেখা গেল, টমাসের পা দাগের ভেতরেই ছিল। ক্যারিবীয় খেলোয়াড়েরা মাঠের বড় পর্দায় দেখেন, বলটি নো ছিল না। এরপরই অধিনায়ক কার্লোস ব্রাফেটের নেতৃত্বে ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রতিবাদ জানায়। ৯ মিনিট খেলা বন্ধ থাকার পর পরিস্থিতি সামাল দিতে মাঠে নেমে আসতে হয়েছিল ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রোকে।

Share with your Friends

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *